Dainik Sotter Kontho- দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
Dainik Sotter Kontho - দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
ঢাকাSaturday , 12 August 2023
  • অন্যান্য

৭০ হাজার টাকায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর বিক্রি

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার ১ নং চিলাহাটি ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের প্রমানিক পাড়া গ্রামের আশ্রয়ণ প্রকল্পে সরকারিভাবে বরাদ্দের দুইটি ঘর বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে উপকার ভোগীদের বিরুদ্ধে। তারা স্ট্যাম্পের মাধ্যমে ৭০ হাজার টাকায় ওই ঘর বিক্রি করে অন্যত্র চলে গেছেন বলে জানা গেছে।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জে র ১নং চিলাহাটি ইউয়িনের প্রমানিক পাড়া গ্রামে আশ্রয়ণ প্রকল্পে সরকারিভাবে ভূমিহীনদের জমিসহ আধা-পাকা বাড়ি উপহার দেন প্রধানমন্ত্রী। নিয়মানুযায়ী এ আশ্রয়ণ প্রকল্পে একসঙ্গে ২২টি ঘর নির্মাণ করে বরাদ্দ দেয়া হয় ভূমিহীনদের। আর ২২টি ঘরের ২টিই উপকারভোগীরা অন্যের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন।

সরেজমিন দেখা যায়, প্রকল্পের ১১নম্বর ঘর বরাদ্দ হয়েছে মিন্টু ও তার স্ত্রী তাহেরা দম্পতি নামে। সরকারি বিভিন্ন নথিতে এ দম্পতির নাম রয়েছে। অথচ ঘরটিতে এখন বসবাস করছেন কুরবান আলী ও তার পরিবার।১২ নম্বর ঘড়টি বরাদ্দা হয়েছে শফিক ও তার পরিবার রিনার নামে ঘরটিতে এখন বসবাস করছেন জাহিদুল ইসলাম ও তার পরিবার আফরোজা আক্তার।।

বর্তমানে ঘরটিতে বসবাসরত কুরবান ও তার পরিবার জানান, ঘরটি স্ট্যাম্পের মাধ্যমে ৭০ হাজার টাকায় তিনি মিন্টুর কাছ থেকে ক্রয় করেন।

জাহিদুল ইসলাম ও তার পরিবার আফরোজা আক্তার জানান, ঘরটি স্ট্যাম্পের মাধ্যমে ৭০ হাজার টাকায় তিনি শফিক/ রফিক পিতা-মকবুল ও তার পরিবার রিনা বেগমের কাছ থেকে কিনেছেন।

একইভাবে ওই আশ্রয়ণ প্রকল্পের ১১. ১২ নম্বর ঘর টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দিয়েছেন উপকারভোগীরা। একেকটি ঘর ৭০ হাজার হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। এসব ঘর যাদের নামে বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল, তারা কেউ এখন এখানে নেই এবং এখানে বসবাস করেন না। যারা টাকা দিয়ে ক্রয় করেছেন তারাই এখন বসবাস করেন বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নিবাহী অফিসার গোলাম ফেরদৌস দৈনিক সত্যের কণ্ঠ কে জানান, আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর বিক্রির কোনো সুযোগ নেই।আর যুদি কেউ ঘর বিক্রির করে থাকে তাদের বন্দোবস্ত বাতিল করা হবে । এবং নিয়মানুযায়ী যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে পুনরায় বরাদ্দ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।