At bagon.la you can Buy webshells, phpmailer, Combo list
"সেন্ট মার্টিন দ্বীপের বন্ধক আমার দ্বারা হবে না"- শেখ হাসিনা
Dainik Sotter Kontho - দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
ঢাকাThursday , 22 June 2023
  • অন্যান্য

“সেন্ট মার্টিন দ্বীপের বন্ধক আমার দ্বারা হবে না”- শেখ হাসিনা

ডেক্স রিপোর্ট
June 22, 2023 12:06 am । ১৬৮ জন
ফাইল ছবি

Google News

বিএনপি সেন্ট মার্টিন দ্বীপ বা বাংলাদেশকে বিদেশিদের কাছে বন্ধক দিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায় কি- না, সেই প্রশ্ন তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ।

বুধবার সুইজারল্যান্ড সফর নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন নিয়ে এক প্রশ্নে তিনি বলেন, “ এখনও যদি বলি যে, না, ওই সেন্ট মার্টিন দ্বীপ বা আমাদের দেশ কাউকে লিজ দেব, তাহলে আমার ক্ষমতায় থাকার কোনো অসুবিধা নাই, আমি জানি সেটা । কিন্তু আমার দ্বারা সেটা হবে না । ”

বিদেশে সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী সব সময় গণমাধ্যমকর্মীদের ডাকেন । তাতে সফরের একটি লিখিত বিবরণ যেমন থাকে, তেমনি প্রশ্নোত্তরে উঠে আসে সাম্প্রতিক আর্থ সামাজিক ও রাজনৈতিক পরিস্থিতির কথা । জানা যায় সরকারের অবস্থান, উঠে আসে তাদের পরিকল্পনা, বিরোধী দলের সম্পর্কে মনোভাব ।
এই সংবাদ সম্মেলনে গণমাধ্যমকর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন রাখেন সেন্ট মার্টির দ্বীপ প্রসঙ্গেও ।

বাংলাদেশের নির্বাচন ও নানা বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নানা বক্তব্য ও পদক্ষেপের পর ১৪ দলের শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন সম্প্রতি জাতীয় সংসদে দাবি করেন, যুক্তরাষ্ট্র সেন্ট মার্টিন দ্বীপ চায় । এরপর বিষয়টি নিয়ে আলোচনা তৈরি হয় ।
শেখ হাসিনা বলেন, “ বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে কাউকে খেলতে দেওয়া হবে না । আমার দেশের মাটি ব্যবহার করে কোনো জায়গায় কোনো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালাবে, কাউকে অ্যাটাক করবে বা এ ধরনের কাজ- আমরা হতে দেব না । আমরা শান্তিতে বিশ্বাস করি, আমরা শান্তিপূর্ণ সহযোগিতায় বিশ্বাস করি ।
“ কিছু কিছু তো আছে, আমি আগে বললাম অন্য দেশের তাবেদারি করবে দেশের মাটি ব্যবহার করে অন্য দেশে আক্রমণ করবে, আমার দেশকে নিয়ে খেলবে, এটাতো আমি অন্তত হতে দিতে পারি না । এটা তো আমি হতে দেব না । ”

আওয়ামী লীগ সভাপতি অভিযোগ করেন, ২০০১ সালে বিএনপি ‘ গ্যাস বিক্রি করার ’ মুচলেকা দিয়েই ক্ষমতায় এসেছিল ।

তিনি প্রশ্ন রাখেন, “ এখন তারা দেশ বিক্রি করবে, নাকি সেন্ট মার্টিন দ্বীপ বিক্রি করার মুচলেকা দিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায়?

“ আমি তো এটুকু বলতে পারি যে, আমি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুরের কন্যা । আমার হাত থেকে এদেশের কোনো সম্পদ কারও কাছে বিক্রি করে আমি ক্ষমতায় আসতে চাই না । ওই গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিলে আমিও ক্ষমতায় থাকতে পারতাম । ”
বাংলাদেশে নির্বাচন ‘ বাধাগ্রস্তকারীদের ’ উপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে লেখা ছয় মার্কিন কংগ্রেস সদস্যের চিঠির বিষয়টি ইঙ্গিত করেও কথা বলেন শেখ হাসিনা । সেই চিঠিতে দাবি করা হয়, বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুরা চাপে আছে । তাদের অধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে ।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, “ আমি মনে করি, দেশের মানুষকে সচেতন হতে হবে । ঠিক যেভাবে আমাদের হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সম্প্রদায় প্রতিবাদ করেছে । বলেছে যে, না, এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভুয়া তথ্য, সেভাবে সকলকে সোচ্চার হতে হবে । ”

নির্বাচন যত কাছে আসবে, তত বেশি বেশি পরিমাণে এ ধরনের ‘ অপপ্রচার ’ চালবে বলেও মনে করেন প্রধানমন্ত্রী ।

তিনি বলেন, “ মানুষকে তারা বিভ্রান্ত করছে এটা ঠিক । কাজেই আমি দেশবাসীকে বলব এ সমস্ত অপপ্রচারে কান দেবেন না, বিভ্রান্ত হবেন না ।

“ এরা বলতেই থাকবে, যত ইলেকশন সামনে আসবে আরও বেশি বলবে । কিন্তু নিজেদের মনে নিজে প্রশ্ন করতে হবে, আসলে ভালো আছেন কি- না, দেশটা ভালো চলছে কি- না, দেশটা এগোচ্ছে কি- না, দেশটার আরও উন্নতি হবে কি- না । ”
সংবাদ সম্মেলনে একজন গণমাধ্যমকর্মী প্রশ্ন রাখেন রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়েও । জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমার থেকে প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থী এলেও ‘ শান্তির নীতিতে ’ চলার কারণে দেশটির সঙ্গে বাংলাদেশ কোনো ‘ ঝগড়া ’ করেনি ।

তিনি বলেন, “ আমরা সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সাথে বৈরিতা নয়- এই নীতিতে বিশ্বাস করি, সেভাবে আমরা মেনে চলব । ”