Dainik Sotter Kontho- দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
Dainik Sotter Kontho - দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
ঢাকাTuesday , 29 August 2023
  • অন্যান্য

লালপুরের ভূমি অফিসারের শোকজ নোটিশের জবাব আদালতে প্রেরণ

নাটোরের লালপুর উপজেলার হাবিবপুর মৎস্যজীবী সমবায় সমিতি ও জলমহাল কমিটির বিরুদ্ধে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা প্রদান করেন আদালত। পরে সেই আদালতের আদেশ অমান্য করে লালপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার(ভূমি) বিবাদী পক্ষকে দখল করে দিয়েছেন মর্মে অভিযোগ উঠলে আদালত লালপুর
উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি আরাফাত আমান আজিজকে শোকজ নোটিশ প্রদান করেন।

পরবর্তীতে সহকারী কমিশনার (ভূমি)আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে সেই শোকজ নোটিশের উপযুক্ত জবাব আদালতে প্রেরন করেছেন বলে জানা গেছে।

সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার জোত রাম নাথ জলমহাল চন্দনা খালের ইজারাকে কেন্দ্র করে এই আদেশ দেওয়া হয়। কিন্তু আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ওই সমিতি ও জলমহাল কমিটির পক্ষ নিয়ে একটি সরকারি খাস পুকুর দখল করে দিয়েছেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি আরাফাত আমান আজিজ।

 

আরও জানা যায়,১৭ই আগষ্ট রামপাড়া মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি সুলতান বাদী হয়ে নাটোরের সহকারী জজ আদালতের ওই সমিতি ও জলমহালের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ আমলে নিয়ে আদালত ওই আদেশ প্রদান করেন বলে জানা গেছে।

এবিষয়ে পূর্বের ইজারাদার ও রামপাড়া মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি সুলতান বলেন, পুকুর ফিরে পাওয়ার জন্য ১৭ই আগষ্ট নাটোরের মাননীয় সহকারী জজ আদালতের মামলা দায়ের করি। পরে আদালত জলমহাল কমিটি ও হাবিবপুর সমাবায় সমিতির সভাপতি হাফিজুর রহমান কে পুকুর দখলে যেতে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা প্রদান করেন আদালত। কিন্তু আদালতের আদেশ অমান্য করে লালপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি আরাফাত আমান আজিজ আমাকে না জানিয়ে পুকুর দখলে আসেন। আমি বিষয়টি আদালতে অবগত করব।

 

এ বিষয়ে বাদীর পক্ষের এ্যাডভকেট আতিকুল হক আদালতের নিষেধাজ্ঞার বিষয়টির সত্যতা স্বিকার করে বলেন,আদলাত এবিষয়ে লালপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি আরাফাত আমান আজিজকে শোকজের নোটিশ দিয়েছেন। কিন্তু তিনি শোকজের জবাব দেননি।

এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি আরাফাত আমান আজিজ সংবাদ কর্মীদের জানান, প্রথম পক্ষকে খাল ইজারা দেওয়ার পরে ৪ মাসেও তারা আমাদের ভূমি অফিসে কোন যোগাযোগ করেনি, রাজস্ব খাতেও তারা কোন টাকা জমা দেননি। পরবর্তীতে আমাদের কর্তৃপক্ষ ঐ খালে লাল নিশানা দিয়েও তাদের কোন খবর মিলেনি,পরে পুনরায় নতুন রেজুলেশনে মাধ্যমে পরের পক্ষকে ইজারা দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন এটা একটি অপ মামলা। সেই মামলার সূত্রধরেই সহকারী কমিশনার বরাবর শোকজ নোটিশ এসেছে। ইতি মধ্যেই সেই শোকজ নোটিশের উপযুক্ত জবাব আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।