Dainik Sotter Kontho- দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
Dainik Sotter Kontho - দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
ঢাকাMonday , 18 September 2023
  • অন্যান্য

বরগুনায় দুর্ধর্ষ ডাকাতি, স্বর্ণ অলংকার লুট

আমতলী (বরগুনা) সংবাদদাতা
September 18, 2023 2:42 pm । ১৩৬ জন
প্রতীকী ছবি

বরগুনার আমতলী উপজেলার শহরতলীর চালিতাবুনিয়ার বাঁশতলা গ্রামে ইউসুফ জামান খলিফার বাসায় এক দুধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। এ সময় ডাকাতরা নগদ দেড় লক্ষাধিক টাকা এবং ৩ ভরি স্বর্ন লুট করে নিয়ে যায়।

ডাকাতিকালে বাঁধা দেওয়ায় ডাকাতদের হামলায় গৃহকর্তা এবং তার মেয়েসহ ৭ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ডাকাতদের রামদার কোপে আহত মেয়ে নুসরাত জাহানকে গুরুতর অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আমতলী থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়,ইউসুফ জামান তার দুই মেয়ে নুসরাত জাহান ও তামান্না,স্ত্রী ফিরোজা বেগম ও নাতিদের নিয়ে ২ ইউনিটের বাসায় বসবাস করে আসছেন। সোমবার রাত গভীর রাতে (আনুমানিক আড়াইটা) ৪ থেকে ৫ জনের একটি ডাকাত দল বাসার সামনের লোহার মুল গেইট ও কাঠের দরজা শাবল দিয়ে ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে।

এই বিভাগের আরও খবর…

ওই সময় বাসার সকলকে দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বাসায় থাকা নগদ ১ লক্ষ ৬৬ হাজার টাকা, ৩ ভরি স্বর্নলঙ্কার ও ৮টি মোবাইল ফোন লুট করে নেয়। টাকা ও স্বর্ন লুটের সময় গৃহকর্তা ইউসুব জামান ও তার মেয়েরা বাধা দিলে ডাকাতরা তাদের উপর রামদা এবং লোহার রড দিয়ে হামলা করে। ডাকাতদের রামদার এলোপাথারি কোপে নুসরাত জাহান (৩২) মাথা, হাত এবং পায়ে গুরুতর আঘাত প্রাপ্ত হন। আহত নুসরাতকে ওই রাতেই মুমুর্ষ অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

আহত অন্যরা হলেন, গৃহকর্তা ইউসুব জামান (৬৬), স্ত্রী ফিরোজা বেগম (৫৫), মেয়ে তামান্না (২৫), তার স্বামী নাদিম হোসেন (৩০), ছোট মেয়ে ইন্নি (১৮), ও নাতি আড়শী (৮)

এদেরকে আমতলী হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

বাসার মালিক ইউসুফ জামান জানান, রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে ৪ থেকে ৫ জনের ডাকাত দল বাড়ির সামনের লোহার গেট এবং ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে দাঁড়ালো অস্ত্রের মুখে বাসার সকলকে জিম্মি করে টাকা স্বর্নলঙ্কার এবং ৮টি মোবাইল সেট নিয়ে যায়। আমাদের উপর হামলার সময় ডাক চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়।

ডাকাতির সংবাদ শুনে রাতেই আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ছাড়াও সোমবার সকালে ডিবির ওসি মোঃ বশিরুল আলম ও বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মোজাম্মেল হক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ বিষয়ে আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, এখনো কোন মামলা হয়নি। তবে ওই ঘটনার রহস্য উদঘাটন এবং সন্দেহভাজনদের আটকের চেষ্টা চলছে।