Dainik Sotter Kontho- দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
Dainik Sotter Kontho - দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
ঢাকাMonday , 18 December 2023
  • অন্যান্য

ফুল গাছ খাওয়ায় ১৪ ছাগল আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি
December 18, 2023 1:48 am । ১০৯ জন
সান্তাহার রেলওয়ে জংশন স্টেশন থানা। ছবিঃ সংগৃহীত

ফুলের গাছ খেয়েছিল কয়েকটি ছাগল । এই অপরাধে ছাগলগুলোকে থানা একটি রুমে আটকে রাখা হয় । এরপর টাকার বিনিময় ছাগলগুলোকে ছাড়িয়ে নেন মালিকরা ।

 

গত শুক্রবার( ১৫ ডিসেম্বর) বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার রেলওয়ে থানায় এ ঘটনাটি ঘটেছে ।

 

ওই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা( ওসি) মোক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি টাকার বিনিময়ে আটককৃত ছাগলগুলোকে মালিকের জিম্মায় ছাড়েন ।

জানা যায়, সান্তাহার রেলওয়ে জংশন স্টেশন থানার সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য থানার পাশে খোলা জায়গায় কিছু ফুলের গাছ লাগানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করেন ওসি মোক্তার হোসেন । পরিকল্পনা অনুযায়ী তিনি কিছু গাছ কিনে নিয়ে আসেন । আর সেই গাছগুলো ছাগল খেয়ে ফেলে । আর তাতেই রেগে যান ওসি মোক্তার । এরপর তিনি একে একে সকল ছাগলগুলো ধরে নিয়ে আসেন পুলিশ সদস্যদের দিয়ে ।

 

গত শুক্রবার সকাল থেকে সারা দিনব্যাপী সান্তাহার রেলওয়ে জংশন স্টেশনের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় ১৪ টি ছাগল থানায় নিয়ে গিয়ে আটকে রাখেন পুলিশ সদস্যরা । আটক রাখা হয় থানা এলাকায় আলামতের ঘরে । ছাগল মালিকেরা তাদের ছাগলগুলো খোঁজ করতে থাকে । এক পর্যায়ে জানতে পারেন ফুলের গাছ খাওয়ার অপরাধে রেলওয়ে থানায় আটকে রাখা হয়েছে ছাগলগুলো ।

ছাগল মালিকরা থানায় গেলে ওসি বলেন, রেলের ভেতরে ছাগল এসেছে কেন? ফুলের গাছ খাওয়ায় ছাগলগুলো ফেরত দেওয়া হবে না । এরপর বিপাকে পড়েন ওই সকল দরিদ্র ছাগল মালিকরা । পুলিশের দাবিকৃত টাকা দিতে না পারলেও বাধ্য হয়ে তারা ছাগল প্রতি ১০০ টাকা করে দিয়ে নিজ নিজ প্রাণিটি নিয়ে যান ।

ছাগল নিতে আসা শহরের চা বাগান এলাকার সিয়াম নামের এক স্কুলছাত্র বলেন, ‘ আমার খালার ৪টি ছাগল আটকে রাখা হয়েছিল রেলওয়ে থানায় । আমি নিতে গেলে প্রথমে ৭০০ টাকা চাওয়া হয় । আমার সাথে একজন ছিলেন । অনেক অনুরোধের পর ৩০০ টাকা দিয়ে ছাগলগুলো নিয়ে আসতে হয়েছে । পুলিশের পোশাক পড়ে একজন টাকা নিয়েছে । ফুলের গাছ খাওয়ার অপরাধে ছাগলগুলো আটক রাখা হয়েছিল । তাই টাকা দিয়ে ছাড়াতে হয়েছে । ’

সান্তাহার রেলওয়ে থানার ওসি মোক্তার হোসেন মোবাইল ফোনে বলেন, রেলওয়ে ধারা অনুযায়ী ছাগল ঢোকার কথা না, তার ওপর আবার আমার বাগানে এসে ফুলের গাছ খেয়েছে । থানার পুলিশ সদস্যরা দেখতে পেয়ে ছাগলগুলো আটক করে নিয়ে আসে ।

ছাগলের সংখ্যা আমার মনে নেই জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ পরবর্তীতে ছাগলগুলো মালিকদের হাতে দিয়ে দেওয়া হয়েছে । আর কেউ যদি বলে টাকা নেওয়া হয়েছে তাকে থানায় নিয়ে আসেন, আমি তার সামনে সকল পুলিশ সদস্যদের হাজির করব, জানববো কে নিয়েছে । ’