Dainik Sotter Kontho- দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
Dainik Sotter Kontho - দৈনিক সত্যের কণ্ঠ
ঢাকাWednesday , 7 June 2023
  • অন্যান্য

শিক্ষার্থীর সঙ্গে শিক্ষকের অনৈতিক আচরণ, উত্তপ্ত ক্যাম্পাস

দোয়ারাবাজার সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের জীববিজ্ঞানের শিক্ষক মো. সাখাওয়াত উল্লাহ মারুফ কর্তৃক এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে অনৈতিক আচরণে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে ক্যাম্পাস । সোমবার ক্লাস বর্জন করে বিচারের দাবিতে, সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে সর্বস্তরের শিক্ষার্থীরা ।

এসময় শিক্ষার্থীরা দাবি জানায়, জীববিজ্ঞানের শিক্ষক আগে থেকেই তাঁর আচরণ অসন্তোষজনক । কিন্তু এতদিন কেউ বলেনি । অবিলম্বে ওই শিক্ষককে দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা না হলে প্রয়োজনে আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে ।

বিষয়টি জানতে পেরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফ মুর্শেদ সহকারী কমিশনার( ভূমি) ফয়সাল আহমদ ও দোয়ারাবাজার থানার উপপুলিশ পরির্দশক মিজানুর রহমান শিক্ষার্থীদের বিচারের আশ্বাস দিয়ে তাদেরকে বিক্ষোভ বন্ধ করে ক্লাসে ফেরার আহবান জানান । পরে এ আশ্বাসে ওপর ভিত্তি করে বিক্ষোভ স্থগিত করে শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে ফিরে যায় ।

অপর দিকে শিক্ষকের বহিষ্কার ও বিচারের দাবিতে সামাজিক মাধ্যমে সরব হয়ে উঠেছে । শিক্ষকের এহেন আচরণে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন সুশীল সমাজের লোকজন ।

প্রশ্ন উঠেছে, ছাত্রের সঙ্গে অনৈতিক আচরণে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের ইন্ধন নিয়েও । এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠান প্রধান আব্দুল মালেকের ভূমিকা নিয়েও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন এলাকাবাসী । ঘটনার পর প্রধান শিক্ষক কোনো প্রকার উদ্যোগ না নিয়ে গোপনে ছুটিতে পাঠিয়ে দেন ওই শিক্ষককে । শিক্ষার্থী, অভিভাবক এবং এলাকাবাসীর কাছে প্রশ্নের সম্মুখীন হওয়ার দায় এড়াতে বলছেন ভিন্ন কথা । কেউ অভিযোগ করেনি এমন অজুহাত দেখিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছেন । এদিকে ওই শিক্ষক জনসম্মুখে ঘটনা ছড়াছড়ি হওয়ার পূর্বে ঘা ঢাকা দিয়েছেন বলে অভিযোগ তুলেছেন শিক্ষার্থী অভিভাবকরা ।

জীববিজ্ঞান শিক্ষক সাখাওয়াত উল্লাহ মারুফের মুঠোফোনে ঘটনার সত্যতা জানতে চাইলে তিনি তা অস্বীকার করে বলেন, এসব অহেতুক । এরকম কোনো ঘটনাই ঘটেনি । আমি ছুটিতে আছি ।

প্রতিষ্ঠান প্রধান আব্দুল মালেক বলছেন, আমরা এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি, তবে শিক্ষার্থী অভিভাবক আমাকে মোবাইল ফোনে অবগত করেছেন । জীববিজ্ঞানের শিক্ষক সাখাওয়াত উল্লাহ মারুফ বর্তমানে ছুটি নিয়ে ময়মনসিংহের বাড়িতে গেছেন ।

সূত্র মতে জানা যায়, জীববিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক
সাখাওয়াত উল্লাহ মারুফ উপজেলা সদরে এক বাসায় প্রতিদিন সকালে ও বিকালে ছাত্রীদেরকে প্রাইভেট পড়াতেন । ওইদিন বিকেলে অন্য ছাত্রীদের চলে যেতে বলে ভুক্তভোগী ছাত্রীকে থাকতে বলেন । সবাই চলে যাওয়ার পর শিক্ষক জোরপূর্বক ওই শিক্ষার্থীর বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেন । পরে কৌশলে ওই শিক্ষার্থী কক্ষ থেকে বের হয়ে বিষয়টি তার সহপাঠী ও পরিবারের লোকজনকে জানায় । পরে তারা বিষয়টি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে জানালেও তিনি এ বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেননি এবং ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগতও করেননি ।

পরে পুরো বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ঘটনার জানাজানি হলে তাদের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হয় । সোমবার ক্লাস বর্জন করে বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ।

জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দোয়ারাবাজার সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি মো. আরিফ মুর্শেদ মিশু বলেন, এ ঘটনায় লিখিত কোনো অভিযোগ পাইনি । অভিযোগ পেলে হলে তদন্ত পূর্বক শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।